ম্যাক এখন বেশি বিপজ্জনক

একসময় মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের তৈরি ম্যাক প্ল্যাটফর্মকে নিরাপদ বলে মনে করা হতো। কিন্তু এখন দিন বদলে গেছে। সাইবার নিরাপত্তাবিষয়ক কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বলছে, অ্যাপলের ম্যাক প্ল্যাটফর্ম এখন বেশি বিপজ্জনক। প্রথমবারের মতো ২০১৯ সালে উইন্ডোজ পিসির চেয়ে বেশি ম্যালওয়্যার–ঝুঁকি তৈরি করেছে ম্যাক প্ল্যাটফর্ম।

অ্যান্টিভাইরাস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ম্যালওয়্যারবাইটসের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, উইন্ডোজ পিসির চেয়ে ম্যাক ডিভাইসে এখন ঝুঁকি বেশি দেখা যাচ্ছে। এতে অ্যাডওয়্যার যুক্ত রয়েছে বেশি। ম্যালওয়্যারবাইটসের বার্ষিক স্টেট অব ম্যালওয়্যার রিপোর্ট অনুযায়ী, বছরের হিসাবে ম্যাক কম্পিউটারে ৪০০ শতাংশ পর্যন্ত ম্যালওয়্যার বাড়তে দেখা গেছে।

অ্যাপলের আইওএস এসডিইতেও ম্যালওয়্যার শনাক্ত করা গেছে। তবে তা স্ক্যান করার কোনো উপায় নেই। আইওএস প্ল্যাটফর্মে থাকা ম্যালওয়্যারগুলোর বেশির ভাগই কোনো দেশ থেকে কাউকে লক্ষ্য করে ছাড়া ম্যালওয়্যার।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ম্যাক ফাইল থেকে সরাসরি ক্ষতিকর আচরণসম্পন্ন ম্যালওয়্যার প্রতিবছর বাড়ছে। এতে অ্যাপল ডিভাইসে আরও বেশি প্রতারণার কৌশল নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে দুর্বৃত্তরা। আইওএস ডিভাইসের ক্ষেত্রেও ম্যালওয়্যার পাওয়া গেছে। তবে অ্যান্টিভাইরাস পণ্যের ওই মোবাইল ডিভাইসে স্ক্যান করতে দেওয়ার সুযোগ থাকবে কি না, তা সিদ্ধান্তের বিষয়। ২০১৯ সালের প্রতিবেদন দেখে যদি কিছু ধারণা করা যায়, তবে এখনই ম্যাকের নিরাপত্তা বাড়ানোর পাশাপাশি একে অধিক গুরুত্ব দিতে হবে।

বাজারে ম্যাক প্ল্যাটফর্মের শেয়ার বাড়ায় সাইবার দুর্বৃত্তদের আগ্রহ বেড়েছে। ম্যাকওএসের ক্ষেত্রে বিশেষ ম্যালওয়্যার সুরক্ষাব্যবস্থা থাকলেও বিভিন্ন অ্যাডওয়্যার বা অনাকাঙ্ক্ষিত প্রোগ্রামের জন্য ব্যবস্থা নেই।

ম্যালওয়্যারবাইটসের বিশেষজ্ঞদের দাবি, তাঁরা উইন্ডোজ প্ল্যাটফর্মেও বিভিন্ন ধরনের ম্যালওয়্যার খুঁজে পেয়েছেন, যা ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য করে ছাড়া হয়। ২০১৯ সালে ম্যাকের ক্ষেত্রেও এ ম্যালওয়্যারগুলো পাওয়া গেছে। এর পাশাপাশি অ্যাডওয়্যারের অস্তিত্বও এখন অ্যাপলের প্ল্যাটফর্মে পাওয়া গেছে বলে এটি এখন বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে।

Related posts

Facebook Comments

Default Comments

Leave a Comment