বাংলাদেশে করোনার চূড়ান্ত অবস্থা আসেনি: চীনা বিশেষজ্ঞ দলের সতর্ক বার্তা

বাংলাদেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে চীনা বিশেষজ্ঞ দল বলেছে, করোনার মতো ছোঁয়াচে ভাইরাসের বিষয়ে এ দেশের মানুষের মধ্যে সচেতনতা খুবই কম। এদেশে সংক্রমণের চূড়ান্ত অবস্থা এখনো আসেনি সতর্ক করে চীনের দলটি। তারা বলছে, আক্রান্তের সংখ্যা কমাতে বৈজ্ঞানিক উপায়ে লকডাউনে যেতে হবে। আজ রবিবার ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ডিক্যাব) সঙ্গে এক ভার্চুয়াল আলোচনায় চীনের বিশেষজ্ঞরা এ কথা বলেন। তারা জানান, বাংলাদেশের এখনো অনেক কিছুতে উন্নতি করতে হবে। সংক্রমণের চূড়ান্ত অবস্থা এখনো আসেনি। এটা রোধ করতে হলে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পথটা আগে কাটতে হবে। সেটা সম্ভব হয়নি। কখন…

করোনায় উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাধাগ্রস্ত হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

করোনা প্রাদুর্ভাবে দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্ত হচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর গতিধারা বজায় রাখতে সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে। রোববার (২১ জুন) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি একনেক বৈঠকে এই কথা বলেছেন তিনি। করোনা সতর্কতায় ভিডিও কনফারেন্সে এই সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জীবন চলমান রেখে, সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জোর আহ্বান জানান তিনি। করোনা পরিস্থিতিতে একরকম অচলাবস্থার মধ্যেও গুরুত্বপূর্ণ কর্মকাণ্ড চলমান রাখার জোর চেষ্টা করছেন নীতিনির্ধারকরা। রোববার শেরে বাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি বা একনেক এর…

মাথাপিছু ২০ কোটি টাকা পাচ্ছেন সংসদ সদস্যরা

করোনায় বিপর্যস্ত অর্থনীতি, ভাটা পড়েছে রাজস্ব আয়েও। এমন সংকটের সময় গ্রামীণ সড়ক আর কালভার্ট নির্মাণের নামে এমপিদের দেয়া হলো মাথাপিছু ২০ কোটি টাকা। অর্থনীতিবিদরা এ নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেছেন, সংকটকালীন অর্থ বরাদ্দে সরকারকে প্রয়োজন বুঝে ব্যয় করতে হবে। অন্যদিকে, পরিকল্পনামন্ত্রীর দাবি, জনগণের চাহিদা আছে বলেই বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। করোনা সংকটে টানা প্রায় আড়াই মাস সাধারণ ছুটিতে অনেকটাই স্থবির ছিলো দেশের অর্থনীতি। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে রাজস্ব আয়ে। শেষ হতে যাওয়া অর্থবছরেই ঘাটতি প্রায় ৮০ হাজার কোটি টাকা। অথচ, এমন প্রেক্ষাপটেই ২৮০ সংসদ সদস্যকে মাথাপিছু ২০ কোটি টাকা করে রাজনৈতিক বরাদ্দ…

সাহারা খাতুনের শারীরিক অবস্থার উন্নতি

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুনের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ভাগ্নে মজিবুর রহমান। এর আগে জ্বর, অ্যালার্জিসহ বিভিন্ন বার্ধক্যজনিত রোগে অসুস্থ অবস্থায় ২ জুন সাহারা খাতুন ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। তার অবস্থার উন্নতি হলে বেডে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) অবস্থার অবনতি হলে শুক্রবার সকালে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। পরে সাহারা খাতুনের করোনা টেস্টে নেগেটিভ আসে। ডাক্তারদের পক্ষ থেকে জানানো হয় বার্ধক্যজনিত কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার খোঁজখবর নিয়েছেন। তাকে আরও কয়েক দিন হাসপাতালে থাকতে হতে পারে। দলের ত্যাগী প্রবীণ এ নেতার জন্য আওয়ামী লীগের…

২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে মৃত্যু ৩৯ ,শনাক্ত ৩৫৩১

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৪৬৪ জনের। নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৫৩১ জন। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লাখ ১২ হাজার ৩০৬ জনে। রোববার (২১ জুন) দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

মালপত্র রেখে ঘর ছেড়ে পালাচ্ছেন কর্মহীন ভাড়াটিয়ারা

কভিড-১৯ এর প্রভাবে শিল্প, ব্যবসা-বাণিজ্য, নির্মাণসহ সব খাত স্থবির হয়ে পড়ায় গত কয়েক মাসে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন রাজধানীর লাখ লাখ মানুষ। কাজ হারিয়েছেন গৃহ শ্রমিক, পোশাক শ্রমিক, নির্মাণ শ্রমিক, হোটেল শ্রমিক থেকে শুরু করে সব খাতের শ্রমজীবীরা। সরকারি-বেসরকারি সহায়তায় কিছু নিম্নবিত্ত পরিবারের খাদ্যের সংস্থান হলেও দিতে পারছে না ঘরভাড়া। ফলে গত তিন মাসে অসংখ্য পরিবার রাজধানী ছেড়ে পাড়ি দিয়েছে গ্রামে। কয়েক মাসের ঘরভাড়া বকেয়া পড়ায় অনেকে মালপত্র রেখেই চলে গেছেন। কেউ রাতের আঁধারে যতটুকু মালামাল নেওয়া সম্ভব তা নিয়ে পালিয়ে গেছেন। একটা শ্রেণি পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার আশায় জমানো শেষ সম্বলটুকু…

কেন শোবিজ থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন অ্যানি খান?

শিশুশিল্পী হিসেবে শোবিজে পা রেখেছিলেন অ্যানি খান। দীর্ঘ ২৩ বছর পর ধর্মীয় বিষয়ে নিজের আত্মোপলব্ধির কারণে শোবিজ থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন তিনি। অ্যানি খান বলেছেন, কারো দ্বারা প্রভাবিত হয়ে মিডিয়া ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেইনি। এ সিদ্ধান্ত আমার একান্তই ব্যক্তিগত। কারণ মৃত্যুর পর আমার হিসেব আমাকেই দিতে হবে। তাই আত্মোপলব্ধি থেকেই আমি মিডিয়ার কাজ থেকে সরে যাচ্ছি। আগে শুটিং করা অ্যানির কিছু কাজ এখনো বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচারিত হচ্ছে। অ্যানি জানান, সবকিছু থেকে গুটিয়ে আসতে আমার হয়তো একটু সময় লাগবে। তবে মন থেকে চাইছি আল্লাহ যেন আমাকে আর কাজে না ফেরান। ঘরে থাকবো,…