হোয়াইট নিউজের সংবাদ প্রকাশের পর সেই মেহেদী বিকস্ কে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে অবস্থিত মেহেদী বিকস্ নামে একটি ইটভাটাসহ আরো দুটি সাড়ে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

সোমবার বিকেলে সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এ.বি.এম মশিউজ্জামান সদর উপজেলার সুহিলপুর ও নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের তিনটি ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে এই জরিমানা করেন।

ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার সুহিলপুর ও নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নে বিদ্যালয়ের আশপাশ এলাকায় মেহেদী ব্রিকস, মেসার্স ভরসা ব্রিকস ফিল্ড এবং মিয়া ভাই এন্ড কোং (আজিম ব্রিকস ফিল্ড) নামে তিনটি ইটভাটায় ইট প্রস্তুত করা হচ্ছে। এসব ইটভাটার কোন লাইসেন্সও নেই।

এ নিয়ে জনপ্রিয় নিউজ পোর্টাল ‘হোয়াইট নিউজের টুয়েন্টিফোর ডটকম’ সংবাদ প্রকাশ করলে নজরে আসে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ বড়ুয়ার।
তিনি বিষয়টি সাথে সাথে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পরিবেশ অফিস ও  উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এ.বি.এম মশিউজ্জামানকে নির্দেশ প্রদান করলে এই ইটভাটাগুলোতে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালত লাইসেন্স না থাকায় সুহিলপুর ইউনিয়নের মেহেদী ব্রিকস ফিল্ডকে সাড়ে চার লাখ টাকা এবং একই দায়ে নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের সিন্দুরউড়া গ্রামের মেসার্স ভরসা ব্রিকস ফিল্ড এবং মিয়া ভাই এন্ড কোং (আজিম ব্রিকস ফিল্ড) কে সাড়ে চার লাখ টাকা করে মোট সাড়ে ১৩লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এ সময় প্রত্যেক ইটভাটার মালিক সরকারি আইন মেনে ইটভাটা পরিচালনা করবেন বলে ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে মুচলেকা দেন।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পঙ্কজ বড়ুয়া বলেন, হোয়াইট নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম’ কে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, একটি নিউজের মাধ্যমে জানতে পেয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। এবং মেহেদী ইটভাটাসহ আরো দুটি সাড়ে ১৩ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া লাইসেন্সবিহীন প্রত্যেকটি ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানান।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার প্রশান্ত বৈদ্য উপস্থিত ছিলেন।

Related posts

Facebook Comments

Default Comments

Leave a Comment