আখাউড়া পৌর নির্বাচন: নৌকায় ওপেন ভোট’ বাকি সব গোপনে

স্টাফ রিপোর্টার:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে ইভিএমে প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে দেখা গেছে। তবে কাউন্সিলর প্রার্থীদের ভোট গোপন কক্ষে দিচ্ছেন ভোটাররা।

এই ঘটনায় গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মেয়র প্রার্থী জয়নাল আবেদীন আব্দু ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নুরুল হক ভূইয়া।

রোববার বেলা ১১টায় আখাউড়া বাংলাদেশ রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় প্রতিটি বুথে চলছে আওয়ামী লীগের মেয়র পদে নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে ভোটগ্রহণ। ভোটাররা আঙুলের ছাপে নিজেদের পরিচয় সনাক্তের পর গোপন কক্ষে ভোট প্রদানের আগে প্রকাশ্যে ইভিএমে নৌকা প্রতীকে ভোট নিচ্ছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থীর এজেন্টরা। তারপর গোপন কক্ষে কাউন্সিলর প্রার্থীদের ভোট দিতে হচ্ছে।

এই বিষয়ে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নুরুল হক ভূইয়া অভিযোগ করে বলেন, ভোটের পরিবেশ খুবই খারাপ। সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো আশা নেই। আমার এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে ধাক্কা দিয়ে বের করে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী তাকজিল খলিফার ভাই দানিছ খলিফা। আমার সব এজেন্ট ভয়ে কেন্দ্র ছেড়ে চলে গেছে।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী জয়নাল আবেদীন আব্দু বলেন, আমার কোনো এজেন্টকে কেন্দ্রে ঢুকতে দেয়া হয়নি। নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে সব ভোট নিয়ে নিচ্ছে। প্রশাসনকে বলার পরও আমাদের কথা শুনছে না।

আখাউড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা জহুরুল আলম বলেন, প্রকাশ্যে ভোট দেয়ার কোনো অভিযোগ নেই। আমাদের কাছে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। ভোটগ্রহণ সুষ্ঠুভাবেই হচ্ছে।

Related posts

Facebook Comments

Default Comments

Leave a Comment