স্বাস্থ্য খাতে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করুন

র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী : বাংলাদেশের স্বাস্থ্য খাত নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় নানারকম তর্কবিতর্ক চলছে। সম্প্রতি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের সেবাদানকারী চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য এক মাসে থাকা ও খাওয়াবাবদ ২০ কোটি টাকা খরচ দেখানোর প্রেক্ষাপটে প্রতিষ্ঠানটির বিপক্ষে দুর্নীতির অভিযোগ আনেন বিভিন্ন মহল। যদিও বুধবার সংবাদ সম্মেলন করে এসব অভিযোগকে সম্পূর্ণ বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে দাবি করেছেন ঢামেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন। তাঁর বক্তব্যটি যদি সত্যও হয় তবু স্বাস্থ্য খাত যে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির বেড়াজালে আবদ্ধ তা অস্বীকার…

আমার বাবা শান্তি কমিটিতে ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে ছিলেন

নাঈমুল ইসলাম খান: আমার জীবনের সবচেয়ে বড় দুঃখ ও কষ্ট এটি, ৭১ সালে আমার বয়স যখন এগার, সেই ছোট্ট আমিও বুঝতাম, স্বজনদের কথায় শুনতাম, বাবা শত্রু পক্ষে। ৮ ডিসেম্বর ১৯৭১ যেদিন কুমিল্লা শহর হানাদার মুক্ত হয়, বিজয়ী মুক্তিযোদ্ধারা শহরে ঢোকে, সেদিনই আমাদের বাগিচাগাঁওয়ের বাসায় শহরের সুশোভিত সেরা বাগানের মাঝখানটায় বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে বাবার রাজনীতির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক বিদ্রোহ ঘোষণা করি। বাবা নিজেও সেদিন দূরে দাঁড়িয়ে নিঃশব্দে পরাজয় মেনে নেন।   যখন বড় হয়েছি, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছি তখন আমার সকল চিন্তা-কর্ম, অসাম্প্রদায়িকতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ। ঢাকায় ছাত্রাবস্থায়ই জীবনের প্রথম চাকরি এডবেস্ট নামে…

ফেসবুক টক-শো নিয়ে যা বললেন এএসপি ইমরান

ইমরান আহমেদ: করোনাভাইরাসের প্রভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে সারাবিশ্ব। তবে করোনাভাইরাসের সংকটকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে যার যার একাউন্টে টক-শো’র নামে নিজস্ব মত প্রকাশ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ পুলিশ সদর দপ্তরে কর্মরত গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ইমরান আহমেদ তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে ফেসবুক টক-শো নিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছে। শনিবার দেওয়া ওই পোস্টটি হোয়াইট নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো। ইমরান লিখেছেন: ”এক সময় ভাবতাম অনুষ্ঠান উপস্থাপনা বা সঞ্চালনা বিশেষ কোনো গুণ। কিন্তু করোনার বদৌলতে এখন অনেকের এই সুপ্ত প্রতিভা বিকাশিত হয়েছে। আগে টক শো নিয়ে…

বাজেট ও জনপ্রত্যাশা

র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী: বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের ধাক্কায় স্থবির দেশের অর্থনীতি। আবাসন, উৎপাদন, আমদানি-রপ্তানিসহ অর্থনীতির সব খাতে বিরাজ করছে অচলাবস্থা। এই সংকটময় সময়ে জাতীয় সংসদে বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এটি দেশের ৪৯তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ২০তম বাজেট এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন টানা তৃতীয় মেয়াদের দ্বিতীয় বাজেট। আমরা মনে করি, জাতির ক্রান্তিলগ্নে ওলটপালট হয়ে যাওয়া অর্থনীতিকে আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে দেশের মানুষের জীবন-জীবিকাকে প্রাধান্য দিয়ে প্রণয়ন করা ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট সংকটময় পরিস্থিতি উত্তরণ ও বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের নতুন মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে…

মোশতাকের ভাতিজা বা রশিদের ভাই নই,এসেছিলাম মানুষের সেবা করতে!

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা, ত্রাণ বিতরণ, সোশাল মিডিয়ায় সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে প্রশংসিত হয়েছেন  ডা. ফেরদৌস খন্দকার। রোববার বিকালে কাতার এয়ারওয়েজের চার্টার্ড ফ্লাইটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন তিনি।  পরে সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে কোয়ারেন্টিনে নিয়ে যায়। তিনি সঙ্গে নিয়ে এসেছেন করোনাভাইরাসে সম্মুখসারির যোদ্ধাদের জন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী। এর মাঝেই দেশে একটি মহল তাকে বঙ্গবন্ধুর খুনীদের স্বজন বলে দাবি করছে। এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে  নিজের অবস্থান ব্যক্ত করেছেন ডা. ফেরদৌস। তিনি লিখেছেন, প্রিয় বাংলাদেশ। দেশে এসেছিলাম নিজের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে করোনা নিয়ে সবার পাশে দাঁড়িয়ে কাজ…

আমি ভীত নই, সংকট উত্তরণে দৃঢ় পায়ে হেঁটে যাবো : নতুন স্বাস্থ্য সচিব

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের ভূমিকা নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের দায়িত্ব পাওয়া নতুন সচিব মো. আবদুল মান্নান আজ শনিবার ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন, যেখানে সংকট উত্তরণে দৃঢ় পায়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন তিনি। প্রার্থনা, হ্যাশট্যাগ দিয়ে নতুন স্বাস্থ্য সচিব মো. আবদুল মান্নান লিখেছেন, ‘ভাবছি, সম্প্রতি আমার একটি বদলিকে কেন্দ্র করে (এটি পদোন্নতি নয়, স্থান পরিবর্তন) দেশব্যাপী এমনকি দেশের বাহির থেকেও আমার অগণিত বন্ধু, সহকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী, বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সতীর্থ ও নিত্যশুভার্থীগণ আমার অতীত কর্মময়তা বিবেচনা করে যে অভাবনীয় আশাবাদ, উচ্ছ্বাস ও গগনস্পর্শী প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তা আমাকে রীতিমতো বিব্রত…

ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে নিয়ে সাবেক এসপি মনিরুজ্জামানের স্মৃতিচারণ “কত কথা রয়ে গেছে না বলা”

মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান (পিপিএম বার): ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে বিভিন্ন স্মৃতিচারণ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাবেক পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান (পিপিএম বার)। বুধবার বিকেলে দিকে তার ফেসবুকে পেজে এ পোস্টটি দেন।  তার ফেসবুক পোস্টটি পাঠকের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল- সালটা মনে হয় ২০১৩ কি ১৪। আমি তখন ব্রাহ্মনবাড়িয়ার এসপি। সিনিয়র পুলিশ অফিসারদের মূল কাজ হল, তদারকি বা সুপার ভিশন । তা সে মামলা, ইউনিটই, অফিস বা ফাইলপত্র যাইেহোকনা কেন। পুলিশ সুপারের কন্ট্রোলরুমে, প্রতিদিন সকালে সকল থানা ও ইউনিট থেকে মর্নিং রিপোর্ট আসে। ফোর্সের বিবরন, ঘটনার বিবরন, বিগত ২৪ ঘন্টার…

অস্তিত্বে আঘাত করলে কি করতে হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসী ঐক্যবদ্ধ্যভাবে বাংলাদেশকে দেখিয়েছে

আসিফ আকবর: চাঁদপুর কুমিল্লা ব্রাহ্মণবাড়ীয়া একসময় একই জেলা ছিল। এখন স্বতন্ত্র হলেও আমরা একই বৃন্তে তিনটি ফুল হিসেবে বৃহত্তর কুমিল্লাই মানি।শান্তশিষ্ট চাঁদপুরের সাথে অভিভাবক কুমিল্লা এবং ডানপিটে ব্রাহ্মণবাড়ীয়া পরস্পর সমার্থক। ব্রাহ্মণবাড়ীয়ায় একসময় যাওয়া আসা ছিল অন্যান্য জেলার চেয়ে একটু বেশীই। আড্ডা কিংবা খেলায় আমার প্রিয় জায়গা।সেখানে জানদার বন্ধুর সংখ্যাও কম নয়।বেড়ে উঠতে উঠতেই দেখেছি তাদের আন্তরিকতা। কঠিন আষাঢ়ীর মত ( কাঁচা তাল)  ভিতরে যেমন নরম শাঁস থাকে ওখানকার মানুষ আসলে তেমনই, না মিশলে বোঝা মুশকিল। সব জায়গায় খারাপ ভাল মানুষ আছে।একজন বুজুর্গ হুজুরের জানাজাকে কেন্দ্র করে পুরো জেলা নিয়ে তুচ্ছ…

জয় হোক মেহনতি মানুষের

র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী : পহেলা মে, মহান মে দিবস ও আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস। বিশ্বের কোটি কোটি শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদয়ের দিন । এদিন ১৮৮৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো শহরের হে মার্কেটের শ্রমিকরা তাদের উপযুক্ত মজুরি আর দৈনিক আট ঘন্টা কাজের দাবিতে যে আন্দোলন গড়ে তুলেছিলো, মে দিবস সেই ঘটনার রক্তাক্ত স্মৃতিবহ দিন । সে সময়ে শিল্পোন্নত দেশগুলোতে শ্রমিকদের ১৬ ঘন্টা কাজ করতে হতো। এভাবে কাজ করে শ্রমিকদের স্বাস্থ্য একেবারে ভেঙে পড়ত। তাই দৈনিক ৮ ঘন্টা শ্রমের দাবিতে শুরু হওয়া আন্দোলনে শিকাগো শহরে ১লা মে শ্রমিকরা ধর্মঘট আহবান করে।…

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় মোকতাদির চৌধুরীর বলিষ্ঠ ভূমিকা প্রশংসনীয়

উপাধ্যক্ষ মোঃ জসিম উদ্দিন বেপারী করোনা ভাইরাসের আঘাতে পুরো পৃথিবীতে চলছে মৃত্যুর মিছিল আর হাহাকার।মহা শক্তিশালী রাষ্ট্রগুলো এ ভাইরাসের আঘাতে হয়ে গেছে অসহায়,তছনছ হচ্ছে সকল কার্যক্রম। লকডাউনে বিশ্ববাসী আজ দিশেহারা। বাংলাদেশে ও আক্রান্তের হার ধীরে ধীরে বেড়ে চলছে।চলছে লকডাউন,বন্ধ সকল শিক্ষা কার্যক্রম।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর চমৎকার দিক নির্দেশনায় সারা দেশে প্রশাসন,ডাক্তার,সেনাবাহিনী,পুলিশ,রাজনীতিবিদ ও সমাজের বিত্তশালী মানুষ যার যার সাধ্য অনুযায়ী চেষ্টা করছেন।জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিন রাত কাজ করছেন।এখন পর্যন্ত বিশ্ব পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশ ভালো আছে।বাকী সময়টুকু দয়াময় প্রভু বাংলাদেশ কে ভালো রাখবেন। ইনশাআল্লাহ। এরই ধারাবাহিকতায় ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে এখনও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের হার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।…